1. admin@dainiktalashtimes.com : admin :
মিঠাপুকুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ এবং ধর্মান্তারিত করে বিয়ের অভিযোগ - দৈনিক তালাশ টাইমস্
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
খুলনায় কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় নেত্রী হালিমা রহমান সহ গ্রেপ্তার ১৫ আদিতমারী সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় গরু পাচার নিয়ন্ত্রন করছে পুলিশের নিয়োগকৃত লাইনম্যান পোরশার নিতপুর সীমান্তে ভাসমান অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার শেরপুরে ভারতীয় মদসহ গ্রেফতার বিশ্বনাথে এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিখোঁজ সিংড়ায় চলছে নিম্নমানের ইট দিয়ে পাঁকা রাস্তা নির্মাণ ও ব্যাপক অনিয়ম বগুড়া জেলার শেরপুরে তামিম হত্যা মামলায় ২৪ ঘন্টার মধ্যেই খু-নের রহস্য উন্মোচন ও আসামী গ্রেপ্তার মুন্সীগঞ্জে পদ্মায় একদিনে ভাঙলো ৭ দোকান ১০টি হুমকির মুখে দিনাজপুরে ৯০ লিটার চোলাইমদ সহ ০২ জন মাদক কারবারি গ্রেফতার নীলফামারীতে অবৈধ মাদকদ্রব্য ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট সহ ০১ জন আটক

মিঠাপুকুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ এবং ধর্মান্তারিত করে বিয়ের অভিযোগ

  • প্রকাশিত: সোমবার, ৮ জুলাই, ২০২৪
  • ৪০৩ ,০০ বার শেয়ার হয়েছে
Oplus_131072

বিশেষ প্রতিনিধি

রংপুরের মিঠাপুকুরে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ফুসলিয়ে প্রেম অতঃপর অপহরণ করে কৌশলে ধর্মান্তারিত করে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে নাজমুল হুদা (১৮) নামে এক তরুণ এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে।

এমনকি ওই নাবালিকাকে সাবালক দেখিয়ে ভূয়া জন্মসনদে রংপুর রোটারি পাবলিক কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে প্রথমে ধর্মান্তারিত এবং পরে বিয়ের এফিডেভিট করে কাজী দ্বারা কাবিননামা সহ বিয়ে পড়ানো  হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তার পরিবার।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়- মিঠাপুকুর উপজেলার ০৬ নং কাফ্রিখাল ইউনিয়নের কোমরগন্জ বাজার সংলগ্ন মুরারীপুর গ্রামের শ্রী-নারায়ন কুমার রায়ের নাবালিকা কন্যা মেঘলা মিতু (১৪) কোমরগন্জ দ্বী-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়াশুনা করতেন। একই স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র এনায়েত পুর গ্রামের আবুল কালামের পুত্র মোঃ নাজমুল হুদার সঙ্গে মেঘলা মিতুর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সম্পর্কের জেরে নাজমুল হুদা এবং তার পরিবার (৩০-জুন) রবিবার নাবালিকা ওই ছাত্রীকে বিদ্যালয় থেকে ফুসলিয়ে কৌশলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

বিদ্যালয় থেকে মিতু যথাসময়ে বাড়িতে ফিরে না আসায় নারায়ন কুমার রায় বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজির পর মিঠাপুকুর থানায় একটি নিখোঁজ জিডি করেন। নিখোঁজ জিডি করার দুদিন পর নারায়ন কুমার রায় রংপুর কালী মন্দিরের জনৈক এক ব্যক্তির ফোন থেকে জানতে পারেন, মিতু তাদের হেফাজতে আছে। পরে তিনি রংপুরে গিয়ে তার মেয়েকে নিজ হেফাজতে নেন এবং নাজমুল হুদাকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন। এসময় নারায়ণ কুমার রায় ধর্মীয় এবং জাতীগত বিষয় চিন্তা করে আবুল কালাম এবং তার পরিবারকে অনুরোধ করেন, বিষয়টি যেনো ভবিষ্যতে কেউ না জানে এবং ছেলে নাজমুল হুদাকে শাসানোর পরামর্শ দেন।

কিন্তু মিতুকে বাড়িতে নিয়ে আসার পর আবুল কালাম, মিতুকে ফেরত নিতে মিঠাপুকুর থানায় একটি অভিযোগ করেন। অভিযোগ পত্রে উল্লেখ্য করেন, মেঘলা মিতু হিন্দু ধর্ম থেকে ধর্মান্তারিত হয়ে মোছাঃ মেঘলা মিতু খাতুন হয়ে তার ছেল নাজমুল হুদাকে শরিয়া মোতাবেক তিনলক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা কাবিননামা মুল দেনমোহর ধার্য করে বিয়ে করেছেন। নাজমুল হুদার সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পর মিতুকে তার বাবা নারায়ণ কুমার রায় জোরপূর্বক আটক রেখেছেন। সেখানে তিনি প্রমাণ হিসেবে বুধবার (৩-জুলাই) তার ছেলের সঙ্গে কোর্টের এভিডেভিড এবং নওমুসলিম হওয়ার ঘোষণা পত্র প্রেরণ করেন।

নাবালিকার পরিবারের অভিযোগ- মিতুর বয়স এখনো ১৫ হয়নি। মিতুকে ফুসলিয়ে তারা অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে এসব করেছে। বিভিন্ন সময়ে মিথ্যা বিয়ের নাটক সাজিয়ে একঘরে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করিয়েছেন। নারায়ণ কুমার রায় বলেন, আমি সমাজে মুখ দেখাতে পারছিনা। আমার মৃত্যু ছাড়া কোনো পথ নেই! আমাকে আমাদের সমাজের লোক ঘটনা জানার পর একঘরে করে দিয়েছে। আমি আইনি সহযোগিতা চাই।

নাজমুল হুদার বাবা আবুল কালাম বলেন, মেয়ে নিজ ইচ্ছায় বাড়িতে এসে উঠেছিল। পরে সবার সহযোগিতায় আইনগতভাবে বিয়ে দিয়েছি। আমার পুত্র বধু যেকোনো সময় আমার বাড়িতে আসবে। তিনি বলেন, নারায়ণ কুমার কিভাবে আমার পুত্র বধুকে আটক রাখে তা আমি দেখবো।

মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, একটি নিখোঁজ জিডি করার পর ওই ছাত্রীকে পাওয়া যাওয়ায় তার বাবা সেটা প্রত্যাহার করেছেন। তবে মিথিলা মিতুর শারীরিক এবং মানুষিক অবস্থার পরিবর্তনের কারনে দুরবর্তী তার কাকার বাড়িতে পাঠানোয় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
  • কপিরাইট আইন ২০১৯-২০২৩সর্বত্র সংরক্ষিত
                          কারিগরি সহায়তায়: JHBD